ট্রাম্পের পরিবেশবিরোধী কর্মসূচীর প্রতিবাদে মৃত সাগরে কনসার্ট

ইলেক্ট্রনিক ঘরানার সংগীতের দিকপাল জিন মাইকেল জার এবার সারারাতব্যাপী সংগীতানুষ্ঠানের আয়োজন করতে চলেছেন মৃত সাগরের তীরে অবস্থিত ইজরায়েলের ঐতিহাসিক মাসাডা দূর্গে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পরিবেশবিরোধী সিদ্ধান্তগুলোর প্রতিবাদে এবং মৃত সাগরকে সংরক্ষণ করার উপরে গুরুত্বারোপ করতেই আসছে বৃহষ্পতিবার এই কনসার্টের আয়োজন করছেন তিনি।

তিন দিক থেকে ইজরায়েল, জর্ডান এবং ফিলিস্থিনবেষ্টিত এই হ্রদটির জল কমছে বছরে প্রায় এক মিটার (তিন ফিট) হারে। বিশেষজ্ঞরা আশংকা করছেন এই হারে জল কমতে থাকলে ২০৫০ সালের মধ্যেই শুকিয়ে যাবে বিশ্বের সবচেয়ে লবণাক্ত হ্রদটি।  সারাবিশ্বকে এই বিষয়ে সচেতন করতেই এই কনসার্টের আয়োজন করছেন বলে জানান ইউনেস্কোর এই স্বেচ্ছাসেবক।

সম্প্রতি উক্ত অঞ্চলে অক্সিজেনের ঘাটতির বিষয়টাও তিনি তুলে ধরেছেন তার এ্যালবাম ‘অক্সিজিন’- এ। তিনি আরও বলেন, “আমি চাই মাসাডা দূর্গের মতই মৃত সাগরকেও ঐতিহ্যবাহী দর্শনীয় স্থান হিসেবে স্বীকৃতি দিক ইউনেস্কো।” উল্লেখ্য, ২০০২ সালে মাসাডা দূর্গকে ঐতিহাসিক স্থান হিসেবে চিহ্নিত করে জাতিসংঘের এই সংস্থাটি।

চার চারবার নিজের কনসার্টে সবচেয়ে বেশি দর্শক সমাগমের গিনেজ রেকর্ডধারী প্রবীণ এই সংগীতবিদ এবার মাসাডায় চান একটি ঘরোয়া কনসার্ট, যাতে সেই স্থানের ভাবগাম্ভীর্য অটুট থাকে। এই কনসার্টে জারের পাশাপাশি সংগীত পরিবেশন করবেন একই ঘরানার ফরাসী এবং ইজরায়েলি সংগীতবিদরা। কনসার্টটির মাত্র ১০,০০০ টি টিকেট বিক্রয়ের জন্য ছাড়া হয়েছে যার মূল্যসীমা ১২৮ থেকে ৭৬৭ মার্কিন ডলার (১২০ থেকে ৭২০ ইউরো)। জার বলেন, “আমি আশা করছি সারাবিশ্বের সকল প্রান্তে প্রত্যেক ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে প্রতিরোধের প্রতীক হবে এই কনসার্ট।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*