কলাম্বিয়ায় ভূমিধ্বসে বিধ্বস্ত জনবসতি: নিহত ২৭০

শুক্রবার আমাজনে ভারী বর্ষণের কারণে দক্ষিণ আমেরিকার কলাম্বিয়ায় দেখা দিয়েছে ভয়াবহ ভূমিধ্বস। এতে করে তছনছ হয়ে গেছে জনবসতি। সরকারি হিসেবে এ পর্যন্ত নিহত হয়েছেন ২৭০ জনেরও বেশি মানুষ। আহত আরও শতাধিক।

দক্ষিণ আমেরিকার প্রশান্ত মহাসাগরের নিকটবর্তী অঞ্চলে আঘাত হানা ভয়াবহ বন্যা ও ভূমিধ্বসের সবচেয়ে নতুন শিকার কলাম্বিয়া। এর আগে বিগত কয়েক মাসে পেরু এবং ইকুয়েডরে একই বিপর্যয়ে প্রাণ হারিয়েছে শত শত মানুষ। ৪০,০০০ জনসংখ্যা সম্বলিত কলাম্বিয়ার দক্ষিণাঞ্চলের শহর মোকো-তে শুক্রবার হঠাৎ আঘাত হানে বন্যা ও ভূমিধ্বস। সম্প্রতি শহরটি পরিদর্শন করে রাষ্ট্রীয় জরুরী অবস্থা ঘোষণা করেন দেশটির রাষ্ট্রপতি জুয়ান ম্যানুয়েল স্যান্টোজ।

এই বিপর্যয়ে শোকের ছায়া নেমে এসেছে সমগ্র কলাম্বিয়ায়। উদ্ধারকর্মীরা আশংকা করছেন, এখনও অনেক মৃতদেহ উদ্ধার করা বাকি। ভূমিধ্বসে পরিবার-পরিজন ও সহায়-সম্বল সব হারিয়ে শোকে মূহ্যমান হয়ে পড়েছেন বেঁচে যাওয়া কলাম্বিয়ানরা। স্যান্টোজ জানান, শুক্রবার রাতে ভূমিধ্বসের আগ দিয়ে ১৩০ মিলিমিটার (৫ ইঞ্চি) বৃষ্টিপাত হয়েছে, যা কলাম্বিয়ার মাসিক গড় বৃষ্টিপাতের ৩০%। এই বৃষ্টিপাতই ভূমিধ্বস এবং বন্যার কারণ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে এবং উদ্ধারকার্যে নিয়োগ করা হয়েছে পুলিশ ও সেনাবাহিনী সহ ১ হাজার উদ্ধারকর্মীকে।

ওদিকে জাতিসংঘ বলছে, দ্রুত জলবায়ু পরিবর্তনই মূল হোতা এসব প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের পেছনে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*