সৌরবিদ্যুৎ দেবে কৃত্রিম সূর্যমুখী!

সময়ের প্রয়োজনেই তৈরি হয় নতুন নতুন প্রযুক্তি। ঠিক যেমনটা দেখা যাচ্ছে নবায়নযোগ্য জ্বালানির ক্ষেত্রে। পরিবেশ দূষণকারী জীবাশ্ম জ্বালানি থেকে নবায়নযোগ্য জ্বালানি-নির্ভর পৃথিবী গড়ার তাড়নায় ক্রমাগত নতুন নতুন প্রযুক্তি নিয়ে আসছেন বিজ্ঞানী-উদ্ভাবকরা। সম্প্রতি এমনই এক মজার প্রযুক্তি নিয়ে হাজির হয়েছে অস্ট্রিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান

বিশালাকায় এক সূর্যমুখী ফুল জোগাবে সৌরশক্তি। ভোরে সূর্যদয়ের সাথে সাথেই উঠে সারাদিন ধরে সূর্যের আলো পাঁপড়িতে মেখে সৌরবিদ্যুৎ উৎপাদন করবে, রাতে আবার গুটিয়েও যাবে। আজগুবি শোনালেও, এমন এক সোলার প্যানেল সত্যিই বানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। অভিনব এই সোলার প্যানেলের নাম তারা দিয়েছেন, ‘স্মার্টফ্লাওয়ার’।

শুধু সারাদিন সূর্যের আলোই শোষণ করবে না, সূর্যের অবস্থান পরিবর্তন হলে সেইমত নিজের অবস্থানও পাল্টাবে এই ফুল। আবার রাতে কিংবা ঝড়বাদলের সময় গুটিয়ে রাখবে নিজের পাঁপড়ি। চমৎকার এই ফুলটির আবিষ্কারক আলেকজান্ডার সোয়াটেক।

এই স্মার্টফ্ললাওয়ারই হতে যাচ্ছে ইতিহাসের প্রথম স্বয়ংক্রিয় সর্বেসর্বা সোলার প্যানেল। সাধারণের চাইতে ৪০% বেশি সাশ্রয়ী এই সোলার প্যানেলটি একাধারে চারজন সদস্যের একটি বসতবাড়িকে বিদ্যুৎ জোগাতে সক্ষম। নির্মাতারা আশা করছেন, অচিরেই এই স্মার্টফ্লাওয়ার গৃহস্থালির একটি অবিচ্ছেদ্য উপকরণে পরিণত হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*